আল-সৌদের নষ্ট রাজতন্ত্র

আল-সৌদের রাজতন্ত্র নজদ থেকে ‘সৌদি আরব’ নাম নিয়ে একটা ‘মধুর ব্যবসা’ শুরু করেছিলো। ‘মক্কা-মদীনা’ দুই হারামাইনের কাস্টোডিয়ান সেজে তারা বিশ্বের মুসলিমদের আবেগে সম্মান-শ্রদ্ধা-ভালোবাসা নিয়ে শতাব্দী ধরে খেলাধূলাও করেছে। অথচ মুসলিম মাত্রই জানে, আবরাহার হাতীবাহিনীর আগমনে আবদুল মুত্তালিব (যারা তখনকার কাস্টোডিয়ান ছিলেন) মোটেই বিব্রত হননি কাবা নিয়ে। তিনি জানতেন আল্লাহই তার উত্তম রক্ষাকারী।

ঢঙ্গী কাস্টোডিয়ান মুসলিমদের দরকার নেই। এককালের মেষপালকের বাচ্চাদের হঠাৎ তেল বেচা পেট্রোডলার দিয়ে অপচয়ের ও অন্যায়ের খরচের সার্ভিস বিশ্ববাসীর দরকার নেই। ওদের এয়ারফোর্সের বোমায় ইয়েমেনের মৃত শিশুদের কান্না এখনো আকাশে-বাতাসে অনুরণিত হয়। এগুলো ইসলাম নয়; পিওর পলিটিক্স, নষ্ট পলিটিক্স।
সৌদি আরবের সাথে আমেরিকা এবং ইসরায়েলের চলমান এই মধুর সম্পর্ক দেখার পর এতটুকু উপলব্ধি দরকার মুসলিমদের যে আবদুল আজিজের এই সন্তানেরা তাদের পূর্বপুরুষদের ধারাবাহিকতায় উসমানী খিলাফতের উপস্থিতি কিংবা মধ্যপ্রাচ্যে অন্য কোন মুসলিম উত্থান মেনে নিতে পারে না। কাতারের মতন উদার, আন্তরিক, সত্যিকারের মুসলিম জনপদকে আশেপাশের নষ্ট কুকুর-শেয়াল রাজতন্ত্র-প্রজাতন্ত্ররা এখন নাকাল করতে নেমেছে আমেরিকা-ইসরাইলের নেপথ্য চাহিদায়।

এই সৌদি আরবের নষ্ট রাজতন্ত্র আমাদের দরকার নেই। এর পেছনের নষ্ট ইতিহাস আমাদের কাঁদায়। অজস্র হত্যা, নির্যাতন, কারাভোগের ইতিহাস মিশে আছে এই রাজতন্ত্রের সাথে। এই সৌদি আরব এখন কাতারকে বয়কট করে, আমেরিকা ও ইসরায়েল তাকে ‘লাইক’ দেয়। তবু তাদের নিয়ে বিশ্বময় পেট্রোডলার ও তদসংলগ্ন পলিটিক্সের বেনিফিশিয়ারি স্কলাররা একদম চুপ!

সৌদি রাজতন্ত্রের ধ্বংস কামনা করি। মুসলিমরা সৌদি নিয়ে যে ফ্যান্টাসিতে ভুগে, আশা করি এই নগ্ন বাস্তবতা খুব শীঘ্রই ‘যারা বুঝার’ তারা দেখবে ও বুঝবে।

২২/০৫/১৭

* * * * * * * * * * * * * * *

আব্দুল আজিজ বিন সৌদের ছানাপোনারা তলোয়ার হাতে ‘ইসলামি জোশের নাচানাচি’ কইরা তাদের আব্বাহুজুর ট্রাম্প ও তার কইন্যা মেলানিয়ার মন জয় করার চেষ্টা কইরা দোজাহানের ব্যাপক সওয়াব হাসিল করলো। তোহ, প্রিয় ছালাফি হুজুরগণ, মক্কা-মদীনার ‘কাস্টুডিয়ান’ বাদশা সালমান গংদের এই নাচানাচি, পরনারীর সাথে ঢলাঢলি নিয়ে আফনাদের বইক্তব্য কী? নষ্ট জ্ঞানের কোন বিশেষ চিপাচাপায় আপনারা এই ঘটনাকে ‘জায়েজ’ বইলা ফতোয়া দিবেন?

আজকেও কি ঢাকার ‘বিশেষ সম্প্রদায়ের’ মসজিদগুলায় কাস্টোডিয়ানদের জইন্য দোয়ায় নাকের পানি-চোখের পানি এক করা হইতেসে? আহা! পেট্রোডলারের কী নিদারুণ প্রয়োগ বিশ্বময়!!

চুপ কইরাই ছিলাম। এখন সিএনেনের ফেসবুক পেইজের লাইভে দেখলাম নেতানিয়াহু (লা’নাতুল্লাহে আলাইহে) ‘আরব নেতাদের’ বিশেষ একজন হইয়া বিশেষ লাটভাইমার্কা বক্তব্য মারতেসে, পাশে মহামতি ট্রাম্প। পরম প্রেম!!

ট্রাম্প-ওবামা-বুশ-নেতানিয়াহু-এহুদ বারাক এবং আল-সৌদের ঔরশের নষ্ট প্রজন্ম– সকল খুনীরই যেন খোদা উপযুক্ত বদলা নেয়… তাদের সমর্থক চ্যালাচামুন্ডাগুলাও অভিশপ্ত হোক।

০৬/০৬/১৭

Advertisements

About mahmud faisal

Yet another ephemeral human being...
This entry was posted in দেশ, ধর্ম. Bookmark the permalink.

মন্তব্য করুন

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s