জীবনগুলোর বৈপরিত্যগুলো

​শীতের দমকে হঠাৎ কাতিউশার কথা মনে হয় আকাশের। কাতিউশার সরলতার কথা মনে হয়, অদ্ভুত তিক্ত জীবনের কথাও মনে হয়। জীবন মনে হয় এমনই হয়। কমবেশি এমনই। বঞ্চনা আর মেনে নেয়ার জীবন। পুনরুজ্জীবন বলে কিছু আছে কি? সেটাও হয়ত একটা রিলেটিভ ব্যাপার। আকাশের মনে হয় ওর স্মৃতির মাঝে কিছু বছর একদম মুছে গেছে। জীবনের হাজার হাজার দিনের কথা সে একদম ভুলে গেছে। অনেক ঘটনা মনে নেই, কিছু ঘটনা আবার অনুভূতির কাঁপুনিসহ মনে আছে। এই যেমন সেই দুই দশক আগে যেমন কাতিউশা ইস্টার সানডেতে ডিম নিয়ে রাস্তা হাঁটছিল যখন, তখনকার অনুভূতিগুলো একদম স্পষ্ট মনে আছে তার। এই তো সেদিন মিলাদুন্নবির দিন শহরে মাথায় কাপড় দেয়া কিশোরিকে দেখে তার সেই কথা মনে পড়েছিলো। কাতিউশা যেমন ইস্টার সানডের কোনো কল্যাণ তার জীবনে পায়নি, এই কিশোরি কি পাবে? রিচুয়াল আর স্পিরিচুয়ালের মাঝে মাত্র দুইটা বর্ণের পার্থক্য হলেও যোজন যোজন দুরত্ব সে টের পায়।

হঠাৎ জোরে একটা হর্নের শব্দে চমকে ওঠে সে। “ওই মিয়া সরেন” ধমক শুনে দ্রুত সরে জায়গা করে দিলো ফুটপাথে উঠে পড়া মোটরবাইকটাকে। ইয়াং একটা ছেলে সানগ্লাস চোখে, পেছনে মেয়েটা তাকে অদ্ভুতভাবে জড়িয়ে ধরে আছে, নিজেকে সোপর্দ করে দিয়েছে যেন। মেয়েটাকে এই আগ্রাসী ছেলেটার বাইক চড়ে যাওয়া দেখে কাতিউশার কথা মনে পড়ে আকাশের। বঞ্চনা যারা ভালোবাসে, তাদের ঠেকাতে পারবে কে? দীর্ঘশ্বাস ছেড়ে ফুটপাথে পড়ে থাকা এক পা বিহীন লোকটাকে এড়িয়ে সামনে এগিয়ে যায় সে। জীবনগুলোর বৈপরিত্যগুলো আকাশের বুকে যেন আঁচড়ে ফালাফালা করে দেয়।

১৫/০১/২০১৭

Advertisements

About mahmud faisal

Yet another ephemeral human being...
This entry was posted in গল্প. Bookmark the permalink.

মন্তব্য করুন

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s