চিরন্মুখ


নক্ষত্রের পতন দেখেছিলাম মনে হয়, তেলিগাতির আকাশে। সবুজ কার্পেটের মতন মাঠ, প্রথম প্রহর, একলা কয়েক ঘন্টার একটানা শুয়ে থাকা। তারা খসে হারিয়েই গেল। কী জানি, হারিয়েছিলো কিনা! স্মৃতি বলে কথা। অস্পষ্ট স্মৃতি। নক্ষত্রের পতন কি এভাবেই হয়? জানিনা, আমি জানিনা অনেক কিছুই। ভুল হলো, আসলে আমি জানিই খুব কম, খুবই কম…

এককালে হয়ত জানতাম কিছু অনুভূতি। একটু একটু করে চিনেছি সেই সেবার থেকে। বৃষ্টির দিনে তারিক হাউসের শেড দিয়ে হেঁটে আসা সাদা ধবধবে পাজামা-পাঞ্জাবিতে, বৃষ্টির ছাটে স্যান্ডেল পরা পায়ের পাতা ভিজে যাওয়া। আমার অদ্ভুত দুপুরে বাগানের গাছগুলোর সান্নিধ্যে ত্রস্তপদে হেঁটে আসা। কেন স্মৃতি এত কাঁপায়? আমার সেই অকলঙ্ক আত্মা, আমি তাকে হারিয়ে ফেলেছি জীবনের অন্ধকার গলি-ঘুপচিতে দিগভ্রান্ত হয়ে চলার আগেই… ভালোবাসারাও অকলঙ্ক হয়? হয় হয়ত, জানিনা আমি, জানিনা কিছুই…

কিছু কিছু অনুভূতি নাকি জানান দিতে নেই। এমন জটিল ধাঁধাঁ আমি বুঝিনা। বুঝিনি কখনো। অনেক বছর পর কিছু কিছু বিষয় মাথায় ঢুকে, মাথায় খেলে। এই নিশুতি রাতে গণনাযন্ত্রের শব্দ আমার আকুতি বুঝেই বুঝি প্রবল হয়ে ঘুরছে। আমার অন্তরাত্মাও এমন হতচ্ছাড়া ঘূর্ণনে ব্যস্ত। অসহায় আমি। আচ্ছা, শুধু কি আমিই এত অসহায়? শক্তপোক্ত পৃথিবী। “সারভাইভাল ফর দা ফিটেস্ট… ।” ভেসে যাই আমি, ভেসে যেতে থাকি যেন কোথায়, কোন সুদূরে…

উন্মুখ থাকিনি কখনো। থেকেছি? নাহ, কই? আমার জীবনটা তো শুধুই দর্শক সত্ত্বার। দেখে যাই, ভেবে যাই। কী অদ্ভুত, তাইনা? ক’জন আছে আমার মতন? স্লো-মোশনে আমি যেন থেকেও নেই। চারপাশে অনেক কিছু হয়, আমি সাক্ষী। নীরব সাক্ষী। কদম গাছটা ফুল ধরে পচা গন্ধ ছড়িয়ে হারিয়ে গেল।

একে একে অজস্র নক্ষত্রের পতন হলো। নক্ষত্রেরা জ্বলজ্বল করে জ্বলে। উজ্জ্বল আলো, মোহনীয় মুগ্ধকর। আমি মুগ্ধ হয়ে দেখি। কাব্য দূরে থাক, বোধহয় দু’টো শব্দও আমার খুঁজে পাইনি কখনো আবেগ প্রকাশ করবো বলে। কী বিন্যাস আমার আবেগ আর শব্দের। হে বাকহীন দ্রষ্টা, কেন তবে সহস্র শব্দের পংক্তিমালা গলাধঃকরণ করেছিলে?

আমি মৃন্ময়, মাটির তৈরি, মাটির আবেশে আবেশিত। মাটির সাথে মিশে থাকা ভার্সিটি মাঠে শুয়ে আকাশের নক্ষত্রগুলোর জ্বলে যাওয়া, পতন হওয়ার সাথে জীবনের পরতে পরতে মিলে যায়। তবু আমি উন্মুখ থাকি হয়ত, এই মুগ্ধ আবেশে আবারো ফিরে যাবার। চিরন্মুখ স্বপ্ন, হয়ত দীর্ঘশ্বাস, দীর্ঘরাত্রির নিঃশব্দ কালদীর্ঘায়নের বাঙময় চিতকার। এই তো শেষ, একটুখানি বাকি এক বিদঘুটে চিরপরাজিতের উপাখ্যান…

About mahmud faisal

Yet another ephemeral human being...
This entry was posted in ব্লগর ব্লগর. Bookmark the permalink.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s