কিছুই থাকে না


একটা সময় কিছুই থাকে না। এই মায়া- ভালোবাসা, এই মোহ-স্বপ্ন, এই ক্রোধ-হিংসা-রাগ-অভিমান — সবই একসময় নিঃশেষ হয়ে যায়। সবই একদিন কেমন যেন ধূলোয় মিশে যায়, মিলিয়ে যায় অনন্তে, অসীমে, কালের মাঝে। কত রঙ্গিন স্বপ্ন, কত-শত আবেগ-অনুভূতি, সবই কেমন যেন ম্রীয়মান হয়ে যায়। যখনই আত্মাকে মিলিয়ে ভালোবেসে কিছু করেছি, ভেবেছি অনেক কিছুই করে ফেললাম, অন্ততঃ সৃষ্টির আনন্দটুকু তো আমাকে স্পর্শ করলো, এই জিনিসগুলো একান্তই আমার হলো।

কিছুই আপন হয়ে থাকে না। সবই একটা সময় চলে যায় দূরে। আমি কবি হলে আমার শব্দগুলো দিয়ে হয়ত অনুভূতিগুলোকে লিখে দিতাম ঝর্ণাধারার মতন করে। আমার শব্দের জগতে এখন খরা চলছে। অনেকদিন কোন কাব্য পড়িনা। অনেকদিন কোন সাহিত্য পড়িনা। অনুভূতিরা এখন ক্ষরিত হয়না বুক থেকে, কেমন যেন জমে বসে থাকে। অনেক ঠান্ডা লাগলে বুক যেমন আটকে থাকে, এখনকার দুঃখানুভূতিরা আমাকে অমন করে আটকে দেয়। অনেক চেষ্টা করেও উগরে দিতে পারিনা, শব্দেরাও তাই আজ ব্যর্থ। আমার হারানোকে তারা আর শব্দকোলাহলে রূপান্তরিত হতে দিতে পারেনা।

স্পষ্ট বুঝছিলাম জীবনে কিছুই থাকে না। ক্ষণিকের জীবনে আসলে কারো উপরে, কিছুর জন্য গভীর দুঃখবোধের মানে হয়না। জানিনা যেই জিনিসগুলো অর্জনের জন্য এতটা ধৈর্য ধরে কষ্ট করছি, তারাও কোনদিন স্পর্শ করবে কিনা। হয়ত ৯৯ ভাগ কাজ শেষ, শেষ মূহুর্তে এসে আমি যদি বিদায় নিয়ে চলে যাই! জীবনের প্রতি মোহ আরো অনেক কমাতে হবে, মানুষের প্রতি আকাঙ্খা আরো কমাতে হবে। ভালোবাসা বাড়াতে হবে আমার স্রষ্টার প্রতি, যিনি আদি-অন্তই আমার সাথে ছিলেন।

একটা কবিতা পেলাম গুগলে সার্চ দিয়ে। আগেই কোথায় যেন পড়েছিলাম। কিছুই থাকে না– এমন অনুভূতিকে নিয়ে লেখা। স্পর্শ করেছে আমাকে।

বাতাসের ফেনা– আল মাহমুদ

কিছুই থাকে না দেখো, পত্র পুষ্প গ্রামের বৃদ্ধরা
নদীর নাচের ভঙ্গি, পিতলের ঘড়া আর হুকোর আগুন
উঠতি মেয়ের ঝাঁক একে একে কমে আসে ইলিশের মৌসুমের মতো
হাওয়ায় হলুদ পাতা বৃষ্টিহীন মাটিতে প্রান্তরে
শব্দ করে ঝরে যায়। ভিনদেশী হাঁসেরাও যায়
তাদের শরীর যেন অর্বুদ বুদ্বুদ
আকাশের নীল কটোরায়।

কিছুই থাকেনা কেন? করোগেট, ছন কিংবা মাটির দেয়াল
গায়ের অক্ষয় বট উপড়ে যায় চাটগাঁর দারুণ তুফানে
চিড় খায় পলেস্তরা, বিশ্বাসের মতন বিশাল
হুড়মুড় শব্দে অবশেষে
ধসে পড়ে আমাদের পাড়ার মসজিদ!

চড়ুইয়ের বাসা, প্রেম, লতাপাতা, বইয়ের মলাট।
দুমড়ে মুচড়ে খসে পড়ে। মেঘনার জলের কামড়ে
কাঁপতে থাকে ফসলের আদিগন্ত সবুজ চিৎকার
ভাসে ঘর, ঘড়া-কলসী, গরুর গোয়াল
বুবুর স্নেহের মতো ডুবে যায় ফুল তোলা পুরোনো বালিশ।
বাসস্থান অতঃপর অবশিষ্ট কিছুই থাকে না
জলপ্রিয় পাখিগুলো উড়ে উড়ে ঠোঁট থেকে মুছে ফেলে বাতাসের ফেনা।

কাব্যগন্থঃ সোনালি কাবিন
—–
ছবি কৃতজ্ঞতাঃ নাভিল, বন্ধুবরেষু

About mahmud faisal

Yet another ephemeral human being...
This entry was posted in কবিতা, সংকলন. Bookmark the permalink.

কিছুই থাকে না-এ 20টি মন্তব্য হয়েছে

  1. Shorna বলেছেন:

    কেন যেন এই মুহূর্তে এই কথাগুলো অব্যক্ত অনুভূতি হয়ে ঘুরছিল… আপনি কতো সুন্দর করে ওই কথাগুলো লিখে ফেলেছেন…🙂

  2. MushfiQ বলেছেন:

    abar jigay… but fireo ashe akshomoy(onek kichu) .

  3. suknopata বলেছেন:

    som1 says,lys is nothng…bt at a tym som1 says too,lyf is somthng when u gv somthng.
    anyws,i m sayng,jokhn asecilam onk khuse nia asecilam,jokhn chole jabo kosto dea jabo nd akta somoy sob ses hoy jabe sudu sobar kache thakbe amr kicu sriti..some gud memorys…

  4. ইমরান বলেছেন:

    কথাগুলো ঠিকই । ভাল লাগল । সবার জীবনের জন্য প্রযোজ্য।

  5. ইমরান কাজী বলেছেন:

    আসলে কথা গুলো আমরো মনের কথা কিন্তু আপনার বলার বা লেখার ক্ষমতা / প্রকাশ করার ক্ষমতা আছে । আমার ? সেটাও হারিয়ে ফেলেছি।

  6. জাবীর রিজভী বলেছেন:

    কোন কিছুই কোনোকিছুর জন্য থেমে থাকে না……মহাকালের স্রোতে জীবনের ক্ষুদ্র সময়গুলোও একসময় হারিয়ে যায়……তবে কেন এ পথচলা…..কেন আঁধারের মাঝে আলোকে অবিরত খুঁজে চলা……..কেন……

    বেঁচে থাকাটাই জীবনের সবথেকে বড় প্রাপ্তি……….এতগুলো মানুষের ভালোবাসাই জীবনের সবথেকে বড় সম্পদ……..

    সৃষ্টিকর্তার স্পর্শের মাঝেই অনিঃশেষ শান্তি………হারিয়ে যাবার সময় তাই এতটুকু আফসোস থাকবে না……থাকবে না কোন অপূর্ণতা…….

    ভালো থাকিস….:)

  7. tusin বলেছেন:

    কবিতা অনেক ভাল লেগেছে ভাইয়া…….
    আর আপনার ।অনুভূতি প্রকাশটা সুন্দর হয়েছে………
    আসলে কিছুই থাকে না …….থাকে স্মৃতি………কিন্তু তাত্ত একটা সময় চলে…..
    এটাই জগতের নিয়ম…….

  8. ইভা বলেছেন:

    অনেক ভালো লাগল ভাইয়া!!!

  9. রাফি বলেছেন:

    কিছুই থাকে না…শুধু ‘গোলাপের জন্য কিছু মায়া রহিয়া যায়’

  10. তাশফিকা বলেছেন:

    আমিও এইটা কথা সবসময় বলি নিজেকে মানুষের কাছে আশা করব যত কম সুখ তত বেশি।তবু আশা-উশা করে ফেলি ।আর কেউই কখনোই পুরোপুরি আপন হবে না একমাত্র আল্লাহ ছাড়া এ কথাটা খুবি বিশ্বাস করি।
    শেষের লেখা দুইটাই বিষণ্ণতা মাখা।

  11. পিংব্যাকঃ কবিতা এমন | আমার স্বপ্নময় জগত

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s